মেনু নির্বাচন করুন

অপরুপ দৃশ্যে সজ্জিত মর্জাত বাওড় যার আকর্ষনে ছুটে আসে অসংখ্য পর্যটক

কালের সাক্ষি হয়ে আজও বাওড়টি তার স্বমহিমায় হাজারো স্মৃতি বহন করে বহমান । বওড়ের দুই পাশ দিয়ে জেলে সম্প্রদায়ের লোকজন বাস করে । তাদের জীবন জীবিকা এই বাওড়ের উপর নির্ভরশীল । তাদের পেশা মাছ ধরা ও তা বিক্রি করা । বাওড়ে প্রচুর বিভিন্ন শ্রেণীর মাছ পাওয়া যায় । বর্ষা মওসুমে বাওড়টি যখন কানায় কানায় পানিতে যখন পূর্ণ হয় তখন এক অপরুপ দৃশ্যের আবির্ভাব ঘটে । এ দৃশ্য উপলব্ধি করতে অনেক লোকের সমাগম ঘটে ।  বাওড়ের আশেপাশের হিন্দু সম্পদায়ের যে বড় পুজা ( দুর্গা পুজা ) হয় তা আড়ঙের মাধ্যমে বিসর্জন দেয় এবং ঐদিন বাওড়ের পাশ দিয়ে একটা মেলা অনুষ্ঠিত হয় এবং তা পর্যবেক্ষনে হাজার হাজার মানুষের সমাগম ঘটে । বাওড়টি সরকার নিয়ন্ত্রন করে । বাওড়ের এপাশ থেকে ওপাশ যাওয়ার একমাত্র মাধ্যম নৌকা । বিভিন্ন পর্যটক আসে নৌকায় বসে সুয়াস্ত দেখার জন্য । 


Share with :

Facebook Twitter